তুই কি আমার দুঃখ হবি? – আনিসুল হক

তুই কি আমার দুঃখ হবি?এই আমি এক উড়নচণ্ডী আউলা বাউলরুখো চুলে পথের ধুলোচোখের নীচে কালো ছায়া।সেইখানে তুই রাত বিরেতে স্পর্শ দিবি।তুই কি আমার দুঃখ হবি? তুই কি আমার শুষ্ক চোখে অশ্রু হবি?মধ্যরাতে বেজে ওঠা টেলিফোনের ধ্বনি হবি?তুই কি আমার খাঁ খাঁ দুপুরনির্জনতা ভেঙে দিয়েডাকপিয়নের নিষ্ঠ হাতেক্রমাগত নড়তে থাকা দরজাময় কড়া হবি?একটি নীলাভ এনভেলাপে

Read More »

ম’রে যেতে সাধ হয় __আনিসুল হক

শাহানা, তুমি গোলাপী জামা প’রে জীবন্ত গোলাপের মতোক্যাম্পাসে এসো না, আমার খারাপ লাগে। সখী পরিবৃতা হয়ে মোগল-দুহিতার মতোকরিডোরে অমন ক’রে হেঁটো না, আমার খারাপ লাগে। শাহানা, তুমি চিবুক নাড়িয়েরাঙা মাড়িতেদুধ শাদা হাতেলালিম জিহ্বায়গিটারের তারের মতো বেজে উঠো না —দরদালান কেঁপে উঠে, ঢিল পড়ে বুকের পুকুরে,কাঁপে পানি থিরিথিরি, আমার খারাপ লাগে। শাহানা, তুমি টিফিন

Read More »

গরম __আনিসুল হক – বাংলা কবিতা

এত কেন গরম বর্ষাকালে? ঝড়ে উড়ে যায় যায় গোআমার মুখের বসনখানিআমার বুকের বসনখানিআমার রইল না লাজলজ্জা এত কেন গরম বর্ষাকালেআমার শরম ওড়ে মেঘের ফোলা পালেঘামে ভেজে আমার গৃহসজ্জাঘামে ভেজে আমার অলস শয্যা লোডশেডিং কেন বর্ষাকালে? এতই যদি গরম বর্ষাকালেআমি তবে ছাদের জলে ভিজিএতই যদি গরম বর্ষাকালেআমি তবে বৃষ্টিজলে ভিজি ভিজুক আমার যত গরমগুলোভিজুক

Read More »

পড়শি __আনিসুল হক

আমার একটা কদম বৃক্ষ আছে! আমি তাকে নীপ বলে ডাকি। আইনত গাছটা আমার নয়, আমি ঠিক তার পাশের বাসায় থাকি! কিন্তু তাকে ডেকে আমি বলি, ওগো নীপ তুমি কিন্তু আমার! তুমি আমার তুমি আমার শুধুই! তোমার ছায়ায় দিবারাত্র শুই। কদম আমার কথায় মাথা নাড়েন, চুলের বেণি বৃষ্টিশেষে ঝাড়েন। বলেন, যখন আকাশ থাকে মেঘলা, আমার ছায়া

Read More »

ছাতা __আনিসুল হক

এমন দিনেই কেবল তোমাকে ভাবা যায়। এমন ঘনঘোর সরিষায়। ইলিশে। বৃষ্টি পড়বে। আমি তোমাকে ভাবব। বৃষ্টি পড়ছে না। আমি তোমাকে ভাবছি না। বৃষ্টি পড়ো পড়ো, ভাবনা ভাবনা আসি আসি। বৃষ্টি ঝরো ঝরো, দুজনে থরো থরো। রোদ উঠল। আমি তোমাকে ভুলে থাকছি। রিকশায় হুড উঠল। আমি তোমাকে ভুলেই আছি। একদম ভাবছি না। নখ নয়, আনখ-নখরা নয়।

Read More »